টানা বৃষ্টিতে চট্টগ্রাম নগরজুড়ে জলাবদ্ধতা

Share The News and also now People

মৌসুমি বায়ু সক্রিয় হওয়ার কারণে চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আজ বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয় চট্টগ্রাম নগরের বিভিন্ন স্থানে। ছবি: সৌরভ দাশ
টানা ভারী বর্ষণে চট্টগ্রাম নগর পানিতে তলিয়ে গেছে। গতকাল রোববার রাত থেকে আজ সোমবার বেলা দুইটা পর্যন্ত বর্ষণ অব্যাহত ছিল। অধিকাংশ এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। বিভিন্ন স্থানে দেয়াল ও গাছপালা ভেঙে পড়ার খবর পাওয়া গেছে।

গতকাল রাত থেকে শুরু হয় ভারী বৃষ্টিপাত। আজ ভোর থেকে সেটা টানা প্রবল বর্ষণে রূপ নেয়। পতেঙ্গা আবহাওয়া দপ্তর সূত্র জানায়, আজ দুপুর ১২টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩৬ দশমিক ২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে চট্টগ্রামে।বৃষ্টির পানিতে ওয়াসা মোড়, ষোলোশহর, নন্দনকানন, মেহেদিবাগ, প্রবর্তক, অক্সিজেন মোড়, মুরাদপুর, ২ নম্বর গেট, চান্দগাঁও আবাসিক এলাকা, বহদ্দারহাট, বাদুরতলা, পাঁচলাইশ, শুলকবহর, কাপাসগোলা, কাতালগঞ্জ, আগ্রাবাদ এক্সেস রোড, বাকলিয়া, হালি শহরসহ চট্টগ্রাম নগরের বড় অংশজুড়ে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। হাঁটু থেকে কোমর সমান পানিতে তলিয়ে গেছে নগরের বিভিন্ন স্থান।

জামালখানে একটি গাছ ভেঙে সড়কের একপাশ দিয়ে যানবাহন চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে গেছে। নগরের ঘাট ফরহাদ বেগ এলাকায় চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের সীমানা দেয়াল ভেঙে পাহাড়ি মাটি ও পানি এসে পড়েছে সড়কে।

বৃষ্টি ও জলাবদ্ধতার কারণে মুরাদপুর, ওয়াসা মোড়, প্রবর্তক মোড় এলাকায় যান চলাচল কার্যত বন্ধ হয়ে যায়। পানিতে ভাসছে চকবাজার কাঁচাবাজারের দোকানপাটগুলো। বিভিন্ন বাসাবাড়ি ও বিপণিকেন্দ্রের নিচতলায় পানি ঢুকে পড়েছে।

এদিকে টানা বৃষ্টির কারণে পাহাড়ধসের শঙ্কা দেখা দিয়েছে। চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার তৌহিদুল ইসলাম বলেন, পাহাড় থেকে এ পর্যন্ত ৩৬১টি পরিবারকে সরিয়ে আশ্রয়কেন্দ্রে নেওয়া হয়েছে। আরও যারা ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাস করছেন, তাদের সরানোর কাজ চলছে। মাইকিং চলছে বিভিন্ন পাহাড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »